Home  • News • Sports News

মেসির হ্যাটট্রিকের দিনে নেইমার-সুয়ারেসের গোল

স্বাগতিকদের-অন্য-গোল-দুটি-নেইমারস্বাগতিকদের অন্য গোল দুটি গোল নেইমার ও লুইস সুয়ারেসের। এই মৌসুমে দুই দলের প্রথম দেখায়ও বার্সেলোনা ৫-০ গোলে জিতেছিল। এই জয়ে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ব্যবধান ১ পয়েন্টে আনল বার্সেলোনা। ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে কার্লো আনচেলত্তির দল। সমান ২৩ ম্যাচে মেসিদের পয়েন্ট ৫৬। ঘরের মাঠে গত নয় ম্যাচে প্রতিপক্ষের জালে ১৪ গোল করার আত্মবিশ্বাস তো ছিলই, সঙ্গে আবার এটা ছিল মেসির লা লিগায় ৩০০তম ম্যাচ। দারুণ এই মাইলফলকে পৌঁছানোটাকে হ্যাটট্রিক করেই উদযাপন করলেন বার্সেলোনার সেরা তারকা। রোববার রাতে কাম্প নউতে বার্সেলোনা প্রথম ১০ মিনিটে কিছুটা এলোমেলো ফুটবল খেললেও ছন্দ ফিরে পেতে দেরি হয়নি দারুণ ফর্মে থাকা দলটির। অল্প সময় বাদে এগিয়েও যায় তারা। সপ্তদশ মিনিটে বার্সেলোনাকে এগিয়ে দেন নেইমার। ডান দিক থেকে মেসির দারুণ কোনাকুনি ক্রসে শট নিয়েছিলেন ব্রাজিলের এই তারকা। শটটা অবশ্য ঠিকমতো নিতে পারেননি তিনি, কিন্তু গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে বল জালে জড়িয়ে যায়। এবারের লিগে নেইমারের এটা সপ্তদশ গোল। সেরা গোলদাতাদের তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন তিনি। গত সপ্তাহে সেভিয়ার বিপক্ষে পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন নেইমার। এই গোল দিয়ে তার সেই হতাশাও কিছুটা দূর হলো। এরপর ম্যাচের বাকি অংশে শুধুই মেসি জাদু। ৩৮তম মিনিটে প্রতিপক্ষের মাঝমাঠের খেলোয়াড়দের ভুলে বল পেয়ে বার্সেলোনার ডিফেন্ডার মার্ক বার্ত্রা পাস দেন মেসিকে। ডান পায়ের শটে বল জালে পাঠাতে কোনো সমস্যা হয়নি টানা চারবারের বর্ষসেরা এই তারকার। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে লড়াই জমে ওঠার আভাস মিললেও কিছুক্ষণ বাদে মেসি জাদুতে বড় জয় নিশ্চিত হয়ে যায় বার্সেলোনার। ৬ মিনিটের ব্যবধানে জোড়া গোল করে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন মেসি। ৫৯তম মিনিটে সের্হিও বুসকেতসের রক্ষণের উপর দিয়ে দেয়া পাস দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে পেদ্রো বল বাড়ান মেসিকে। বল মাটিতে পড়ার আগেই ভলি করে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন তিনি। ৬৫তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে দলের চতুর্থ ও নিজের তৃতীয় গোলটি করেন মেসি। অতিথি ডিফেন্ডার ইভান নিজেদের ডি বক্সে নেইমারকে ফেলে দিলে পেনাল্টিটা পায় বার্সেলোনা। এই হ্যাটট্রিকের সাহায্যে লিগের সেরা গোলদাতা হওয়ার লড়াইটা আরও জমিয়ে তুললেন মেসি। ২৮ গোল নিয়ে শীর্ষে আছে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। ২ গোল কম নিয়ে তারপরেই আছেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। ৭৩তম মিনিটে বার্সেলোনার পঞ্চম গোলটি আসে সুয়ারেসের দারুণ 'সিজার কিকে'। বাঁদিক থেকে আদ্রিয়ানোর দারুণ ক্রসে অসাধারণ ভঙ্গিমায় বল জালে পাঠান উরুগুয়ের এই স্ট্রাইকার।

Warning: usort() expects exactly 2 parameters, 1 given in C:\webserver\www\towhid_info\include\pagination_lib.php on line 68

Comments 0


Share

About Author
Faruk Hossain Topu